দোহাটেকে চালু হলো ই-সাইন সুবিধা

সেমিনারে বক্তারা বলেন, বিশ্বের বিভিন্ন উন্নত দেশে ডিজিটাল সার্টিফিকেট ধারণাটা পরিচিত হলেও আমাদের দেশে একেবারই নতুন। ডিজিটাল সার্টিফিকেট হলো কোনো কোম্পানি বা ব্যক্তির ভার্চুয়াল বৈধতা। যেখানে কোম্পানি বা ব্যক্তির দুটি নির্দিষ্ট কি থাকে। একটি হলো প্রাইভেট কি এবং অন্যটি পাবলিক কি। এ সার্টিফিকেটে কোম্পানি বা ব্যক্তির একটি নির্দিষ্ট কোড নম্বর থাকে, যেটা ডিজিটাল সাইন নামে পরিচিত। ডিজিটাল সাইন ব্যবহার করে বিভিন্ন কোম্পানি অতিসহজে লেনদেন সম্পন্ন করতে পারে। ই-কমার্সের ক্ষেত্রে ডিজিটাল সাইনের রয়েছে বিশেষ গুরুত্ব। এ ছাড়া বিভিন্ন প্রাতিষ্ঠানিক সার্টিফিকেট এবং দলিলাদি ডিজিটাল সাইন দ্বারা স্বাক্ষরিত হলে নকল বা জাল করা অসম্ভব। কারণ, ডিজিটাল সাইন দ্বারা ইলেকট্রনিক স্বাক্ষর সংযুক্ত হলে ইলেকট্রনিক রেকর্ড সত্যায়িত হয়, যা মুছে ফেলা অসম্ভব।—আবদুর রাজ্জাক সরকার

Src: http://www.prothom-alo.com/detail/date/2012-07-05/news/271234

Share